মঙ্গলবার   ১৫ অক্টোবর ২০১৯   আশ্বিন ৩০ ১৪২৬   ১৫ সফর ১৪৪১

৬১

৫ বিভাগে ভারী বর্ষণের আভাস

নিউজ ডেস্ক:

প্রকাশিত: ৯ জুলাই ২০১৯  

চট্টগ্রাম ও বরিশাল বিভাগে ভারী বৃষ্টিসহ সারাদেশেই বৃষ্টিজনিত বিরূপ আবহাওয়া বিরাজ করছে। আর মঙ্গলবার (৯ জুলাই) পর্যন্ত দেশের পাঁচ বিভাগে ভারী বর্ষণ হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, মৌসুমি বায়ুর বর্ধিতাংশ ভারতের রাজস্থান, উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত।

এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের উপর সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে প্রবল অবস্থায় বিরাজমান।

আবহাওয়াবিদ বজলুর রশিদ জানিয়েছেন, মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকার কারণে মঙ্গলবার সকাল ১০টা পর্যন্ত রংপুর, ময়মনসিংহ, সিলেট, বরিশাল এবং চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও ভারী (৪৪-৮৮ মি.মি.) থেকে অতিভারী (৮৯ মি.মি.) বর্ষণ হতে পারে।

অতিভারী বৃষ্টির কারণে চট্টগ্রাম বিভাগের পাহাড়ি এলাকায় কোথাও কোথাও ভূমিধসের আশঙ্কা রয়েছে।

সোমবার (৮ জুলাই) সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং খুলনা বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে অতিভারী বর্ষণ হতে পারে।

এদিকে বৃষ্টির কারণে রাজধানীর কারওয়ান বাজার থেকে ফার্মগেট এলাকায় কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউয়ে জলাবদ্ধতা দেখা যায়। জলাবদ্ধতার কারণে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

আবহাওয়াবিদ রুহুল কুদ্দুছ জানান, এখন বর্ষাকাল, মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকার কারণে সারাদেশে বৃষ্টিপাত হচ্ছে। মঙ্গলবার থেকে দক্ষিণে সামান্য কমবে। তবে উত্তরে বৃষ্টি হবে আরও কয়েকদিন। আগামী ১০-১১ জুলাইয়ের দিকে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা কমতে পারে। 

তিনি জানান, বেলা ১২টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত ঢাকায় ১৫ দশমিক ৮ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। সকাল ৬টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত দেশের সর্বোচ্চ সীতাকুণ্ডে ১০৬ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

এছাড়াও এ সময়ে চট্টগ্রামে ৭২ মিলিমিটার, সন্দ্বীপে ৯৪ মিলিমিটার, রাঙামাটিতে ৫৮ মিলিমিটার, মাইজদীকোর্টে ৩০ মিলিমিটার, সিলেটে ২৯ মিলিমিটার, খেপুপাড়ায় ৪২ মিলিমিটারসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ভারী বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়।

মেহেরপুর বার্তা
মেহেরপুর বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর