বুধবার   ১৬ অক্টোবর ২০১৯   আশ্বিন ৩০ ১৪২৬   ১৬ সফর ১৪৪১

শুভ জন্মদিন মাশরাফি

স্পোর্টস ডেস্ক:

প্রকাশিত: ৫ অক্টোবর ২০১৯  

আজ ৫ অক্টোবর, নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সফল ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার জন্মদিন। ১৯৮৩ সালের এইদিনে তিনি নড়াইল শহরের আদালতপুরে মামাবাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন। 

মাশরাফির বাবার নাম গোলাম মুর্ত্তজা স্বপন। মায়ের নাম হামিদা বেগম বলাকা। দুই ভাইয়ের মধ্যে মাশরাফি বড়। ছোট ভাই সিজার মাহমুদও ক্রিকেট নিয়েই সময় কাটান। মাশরাফি বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলোয়াড়ই শুধু নয়, মানুষও। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানিয়েছেন, দেশের সবচেয়ে বড় সম্পদ মাশরাফি। তার উপর আস্থা রেখেই ম্যাশের জন্মস্থান নড়াইল থেকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লড়াইয়ের সুযোগ করে দেন। একাদশ সংসদ নির্বাচনে নড়াইল-২ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন মাশরাফি।

পরিবারসহ নড়াইলবাসীর কাছে মাশরাফি ‘কৌশিক’ নামেই পরিচিত। তবে তার জন্মদিন কখনো ঘটা করে পালন করা হয় না। মাশরাফির যখন এক বছর বয়স, তখন কেক কেটে জন্মদিন পালন করা হলেও পরবর্তীতে আর কখনো সেভাবে পালন করা হয়নি। এখন, এতিম মানুষের মাঝে খাবার, টাকা-পয়সা দেওয়ার মধ্য দিয়ে তার জন্মদিন পালন করা হয়।

নড়াইল এক্সপ্রেস খ্যাত এই তারকার ২০০১ সালে টেস্টের মধ্যদিয়ে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলে অভিষেক ঘটে। ২০০৯ পর্যন্ত এই ফরম্যাটে খেলেছেন মোট ৩৬টি ম্যাচ। আদায় করেছেন ৭৮টি উইকেট। অবসরের ঘোষণা না দিলেও টেস্টে হয়তো আর ফিরবেন না তিনি। একই বছর ওয়ানডেতে অভিষেক ঘটে এই গতি তারকার। সর্বশেষ ওয়ানডে বিশ্বকাপ ফাইনাল পর্যন্ত ২১৭টি ম্যাচ খেলেছেন তিনি। বাংলাদেশের প্রথম বোলার হিসেবে তুলে নিয়েছেন ২৬৬টি উইকেট। ২০১৭ সালে টি-টোয়েন্টিতে অবসর নেওয়া মাশরাফির সংগ্রহ ৫৪ ম্যাচে ৪২টি উইকেট।

শরীরের থেকে মনের জোরই বেশি মাশরাফির। এ কারণে তিনি বারবার বুড়ো আঙুল দেখিয়েছেন ইনজুরিকে। হাসপাতালের ছুরি-কাঁচি আর সার্জারিকে তোয়াক্কা না করে নেমেছেন সবুজ গালিচার মাঠে। দৌঁড়েছেন নিজের দলের জন্য, দেশের জন্য। যাচ্ছেন অদ্যবধিও। 

ইনজুরিকে ফুঁ দিয়ে উড়িয়ে দেয়ার গোপন মন্ত্রও জানালেন ‘প্রিন্স অব হার্টস’ খ্যাত মাশরাফি। তিনি বলেন,  ‘বার বার ইনজুরি থেকে ফিরে আসার প্রেরণা পাই, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কাছ থেকে। এমনও ম্যাচ গেছে আমি হয়তো চোটের কারণে সোজা হয়ে দাঁড়াতে পারছিলাম না। দুই তিনটা বল করেই বুঝতে পারছিলাম সমস্যা হচ্ছে। তখন তাদের স্মরণ করেছি। নিজেকে বলেছি, হাতে-পায়ে গুলি লাগার পরও তারা যুদ্ধ করেছিলেন কীভাবে? তোর তো একটা মাত্র লিগামেন্ট নেই! দৌঁড়া...’ 

২০০৬ সালের ৭ সেপ্টেম্বর মাশরাফি-সুমি দম্পতির বিয়ে হয়। ২০১৪ সালের আজকের এই দিনে (৫ অক্টোবর) তাদের ঘর আলো করে আসে তাদের দ্বিতীয় সন্তান সাহেল মর্তুজা। আজ ৫ বছর পেরিয়ে ৬ বছরে পা রাখছে সে। 

এদিকে, মাশরাফি বিন মর্তুজা ও সাহেল মর্তুজার জন্মদিন উপলক্ষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অভিনন্দন জানাচ্ছেন অধিনায়কের ভক্তরা। দিনটি উপলক্ষে বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে আনন্দ র‌্যালি, কেককাটার আয়োজন করা হলেও এসব কর্মসূচি পালন না করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন ম্যাশ।

হাজারো ক্রিকেট ভক্তের ভালোবাসা নিয়ে, হাজারো তরুণ ক্রিকেটারের অনুপ্রেরণা হয়ে শত বছর বেঁচে থাকুক আমাদের মাশরাফি। শুভ জন্মদিন হে জীবন্ত কিংবদন্তি।

মেহেরপুর বার্তা
মেহেরপুর বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর