মঙ্গলবার   ১৫ অক্টোবর ২০১৯   আশ্বিন ৩০ ১৪২৬   ১৫ সফর ১৪৪১

১১৯

শুভ জন্মদিন পূর্ণিমা

বিনোদন ডেস্ক:

প্রকাশিত: ১১ জুলাই ২০১৯  

দেশে অসংখ্য তরুণ আছে, যারা প্রতিদিন অপেক্ষায় থাকে প্রিয় অভিনেত্রী কখন নতুন ছবি প্রকাশ করবেন! হাতে নতুন চলচ্চিত্রের কাজ নেই, তাতে কি! ভক্তরা পুরোনো সিনেমাগুলো দেখে এখনো আনন্দিত হন, চোখ ভাসান জলে। চমৎকার অভিনয়, পরিমিত রসবোধ আর অসাধারণ ব্যক্তিত্ব দিয়ে দর্শকদের হৃদয় জয় করে রেখেছেন এই অভিনেত্রী। কার কথা বলা হচ্ছে, সেটা নিশ্চয়ই টের পেয়ে গেছেন! আজ তার জন্মদিন। শুভ জন্মদিন দিলারা হানিফ পূর্ণিমা।

৩৮ পেরিয়ে ৩৯ বছরে পা রাখলেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এই অভিনেত্রী। এই বয়সটা তার কাছে কেবলই একটা সংখ্যা। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তার সৌন্দর্য যেন দিন দিন বাড়ছে। এই বয়সেও কীভাবে তিনি এমন সৌন্দর্য ধরে রেখেছেন, তা নিয়ে ব্যাপক আলোচনা হয় সোশ্যাল মিডিয়াসহ নানা মাধ্যমে।

চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে ১৯৮১ সালের ১১ জুলাই পূর্ণিমার জন্ম হয়েছিল। তবে তার বেড়ে ওঠা ঢাকায়। অভিনয় জগতে তার পথচলা শুরু মাত্র ১৬ বছর বয়সে। ১৯৯৭ সালে জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘এ জীবন তোমার আমার’ ছবির মাধ্যমে পূর্ণিমার চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়। নায়ক ছিলেন রিয়াজ। এ জুটি একসঙ্গে সর্বাধিক ২৫টি ছবিতে অভিনয় করেছেন। এক সময় রিয়াজ-পূর্ণিমা জুটি ছিল খুবই দর্শকনন্দিত।

দীর্ঘ ২৩ বছরের ক্যারিয়ারে অসংখ্য হিট সিনেমা উপহার দিয়েছেন পূর্ণিমা। তার অভিনীত চলচ্চিত্রের মধ্যে ‘মনের মাঝে তুমি’, ‘মেঘের পরে মেঘ’, ‘হৃদয়ের কথা’, ‘সুভা’, ‘আকাশ ছোঁয়া ভালোবাসা’, ‘ওরা আমাকে ভালো হতে দিল না’, ‘পিতা-মাতার আমানত’, ‘কে আমি’, ‘পরাণ যায় জলিয়া রে’, ‘মাটির ঠিকানা’ উল্লেখযোগ্য।

জন্মদিন প্রসঙ্গে নায়িকার ভাষ্য, এই দিনটা একেবারেই নিজের মতো করে কাটাতে চাই, পরিবারের সবার সঙ্গে বিশেষ এই দিনটির সময়টা পার করতে চাই। তবে হ্যাঁ, এটাও সত্য জন্মদিনে পরিচিত, অপরিচিত শুভাকাঙ্ক্ষী, ভক্ত দর্শক এবং আমার চলচ্চিত্র পরিবারসহ সবার কাছে দোয়া চাই যেন ভালো থাকি, সুস্থ থাকি।

দীর্ঘদিন বড় পর্দায় অনিয়মিত পূর্ণিমা। বড় পর্দার পাশাপাশি ছোট পর্দায় তাঁকে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের বিচারক ও উপস্থাপনার দায়িত্বে দেখা যায়। এ ছাড়া বহু নাটক ও টেলিছবিতে নিয়মিত অভিনয় করছেন তিনি।

মেহেরপুর বার্তা
মেহেরপুর বার্তা