মঙ্গলবার   ২৩ জুলাই ২০১৯   শ্রাবণ ৭ ১৪২৬   ২০ জ্বিলকদ ১৪৪০

২৩

শুক্রবার হতে পারে বৃষ্টি, কমবে গরম

নিউজ ডেস্ক:

প্রকাশিত: ১৩ জুন ২০১৯  

টানা কয়েকদিনের ভারী বৃষ্টির পর আবারও শুরু হয়েছে তীব্র দাবদাহ। এতে পুড়ছে পুরো দেশ। গরমের তীব্রতায় রাস্তা-ঘাটে চলাচলে ব্যাপক বেগ পেতে হচ্ছে। এছাড়া কৃষকরাও কাজ করতে পারছেন না মাঠে। জনমনে বৃষ্টির অপেক্ষা। তবে স্বস্তির বৃষ্টির পূর্বাভাসের কথা জানাচ্ছে আবহাওয়া অফিস।

আবহাওয়া অফিস বলছে, লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ থেকে উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু চট্টগ্রাম অঞ্চল পর্যন্ত অগ্রসর হয়েছে। ফলে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে শুক্রবার (১৪ জুন) থেকে দমকা হাওয়াসহ ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এতে ক্রমান্বয়ে তাপমাত্রা হ্রাস পাবে। গরমের তীব্রতা কমে জনজীবনে কিছুটা স্বস্তি ফিরবে বলেও ধারণা করা হচ্ছে। আবহাওয়া অফিস সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

বুধবার (১২ জুন) সকালে আকাশ মেঘলা থাকলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে রোদের প্রখরতা বাড়তে থাকে। হালকা বাতাস বয়ে গেলেও তা গরম অনুভূত হচ্ছে। রাতের আকাশ আংশিক মেঘলা আছে। তবে এখনো তাপমাত্রা কমেনি। রাস্তা-ঘাটে তীব্র গরম থেকে রক্ষা পেতে অনেককে ছাতা ব্যবহার করতে দেখা গেছে।

আবহাওয়াবিদ মো. শাহীনুল ইসলাম বলেন, ‘উত্তর-দক্ষিণাঞ্চলের দিকে আজ রাত থেকে বৃষ্টি হতে পারে। তবে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে শুক্রবার থেকে বৃষ্টির প্রবণতা বৃদ্ধি পাবে। তাপমাত্রাও হ্রাস পাবে। সোমবার (১৭ জুন) পর্যন্ত বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে। এরপর দু-একদিন গ্যাপ দিয়ে আবারও বৃষ্টি শুরু হতে পারে। মৌসুমী বায়ুর প্রভাব এখনো পড়েনি।’

তিনি আরও বলেন, ‘বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) ভারতের গুজরাটে আঘাত হানতে পারে নতুনভাবে সৃষ্টি হওয়া ঘূর্ণিঝড় বায়ু। তবে এর কোনো প্রভাব বাংলাদেশে পড়বে না।’

বুধবারের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে- রাজশাহী, রংপুর, চট্টগ্রাম, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং ময়মনসিংহ, ঢাকা ও খুলনা বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

এছাড়া ঢাকা, টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, নোয়াখালী, ফেনী, দিনাজপুর ও নীলফামারী অঞ্চলসহ রাজশাহী, খুলনা ও সিলেট বিভাগের উপর দিয়ে মৃদু তাপ প্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা কিছু জায়গা হতে প্রশমিত হতে পারে।

পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টায় বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টির প্রবণতা বৃদ্ধি পেতে পারে। বর্ধিত পাচঁ দিনের শেষের দিকে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু সারাদেশে বিরাজ করতে পারে।

ঢাকার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে- ঢাকা ও পাশ্ববর্তী এলাকার অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা থাকতে পারে। আবহাওয়া প্রায় শুষ্ক থাকতে পারে। দক্ষিণ বা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ১০ থেকে ১৫ কিলোমিটার বেগে বাতাস প্রবাহিত হতে পারে। এছাড়া রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

নদীবন্দরের সতর্কবার্তায় বলা হয়েছে- রংপুর, দিনাজপুর, রাজশাহী, পাবনা, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারীপুর, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং সিলেট অঞ্চলের উপর দিয়ে পশ্চিম বা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরে এক নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

মেহেরপুর বার্তা
মেহেরপুর বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর