মঙ্গলবার   ২৩ জুলাই ২০১৯   শ্রাবণ ৭ ১৪২৬   ২০ জ্বিলকদ ১৪৪০

২০৫২

মেহেরপুরে বিএনপি প্রার্থী মাসুদ অরুণের যত অপকর্ম

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০ ডিসেম্বর ২০১৮  

মেহেরপুর-১ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী হিসেবে দলের জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক জেলা সভাপতি মাসুদ অরুণকে মনোনয়ন দিয়েছে বিএনপি। এর আগে ২০০১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত সংসদ সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। তবে মেহেরপুরে অপকর্মের শেষ নেই এই বিএনপি প্রার্থীর।

শুধু সংসদ সদস্য থাকার সময়েই নয়, ক্ষমতা হারানোর পরও নানা অপকর্ম করেছেন মাসুদ অরুণ। সংসদ সদস্য থাকার সময় মেহেরপুর শহরে ‘অরুণ বাহিনী’ নামের একটি সন্ত্রাসী বাহিনী গড়ে তুলেছিলেন তিনি। এমন কোনো অপকর্ম নেই, যা এই অরুণ বাহিনী করেনি।

২০০১ সালে ক্ষমতায় আসার পর চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি থেকে শুরু করে খুন, রাহাজানি- সব কিছুই করেছে এই অরুণ বাহিনী। আর তাদের ত্রাণকর্তা হিসেবে থেকেছেন মাসুদ। ২০০২ সালে তারা মেহেরপুরের এক ব্যবসায়ীকে খুন করে চাঁদার জন্য। পরে ওই ব্যবসায়ীর পরিবার মামলা দিতে গেলে মাসুদের হুমকিতে তা নিতে অস্বীকার করেন তৎকালীন মেহেরপুর সদর থানার ওসি।

ভূমি দখলদার হিসেবেও নাম আছে মাসুদের। শহরের কাসারীপাড়া এলাকায় একের পর এক ভূমি দখল করে সেখানে নিজের রাজত্ব গড়ে তুলেছেন। স্থানীয় সমিরা খাতুন জানান, স্বামীর মৃত্যুর পর ভয় দেখিয়ে তার জায়গা-জমি দখল করেন মাসুদ।

এদিকে এ ধরনের একজন প্রার্থীকে বিএনপি মনোনয়ন দেয়ায় শঙ্কা বিরাজ করছে স্থানীয়দের মধ্যে। মাসুদ অরুণ এবং তার দল ফের বিজয়ী হলে ২০০১ থেকে ২০০৬ সালের সেই দুঃশাসন নেমে আসবে বলে আশঙ্কা তাদের। তবে সাধারণ মানুষ মনে করছে, ব্যালট বিপ্লবের মাধ্যমে মাসুদ অরুণের মতো সন্ত্রাসী ও তার দলকে পরাজিত করবে মেহেরপুরবাসী।

মেহেরপুর বার্তা
মেহেরপুর বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর