শনিবার   ২০ জুলাই ২০১৯   শ্রাবণ ৫ ১৪২৬   ১৭ জ্বিলকদ ১৪৪০

২৩

মুখে ঘা? সারিয়ে তুলুন এই উপায়ে!

স্বাস্থ্য ডেস্ক:

প্রকাশিত: ২ জুলাই ২০১৯  

প্রায়ই মুখে ঘা হওয়ার সমস্যায় হয়। আর ছোট-বড় সবাই মুখের ঘায়ের কষ্টে ভোগেন। আর একবার এই সমস্যাটা হলে খুব সহজে সেরে ওঠে না।  জানেন কি, ঠিক কি কারণে এই সমস্যা দেখা দেয়? সমীক্ষা বলছে, মুখ ঠিকমতো পরিষ্কার না করলে, অন্যমনস্কভাবে ঠোঁট কামড়ে ফেললে, দাঁতের ছুঁচলো অংশ দিয়ে ঠোঁট বা গালের ভেতরের অংশে ঘষা লাগলে, টুথব্রাশ থেকে অথবা ভাইরাল ইনফেকশনের কারণেও মুখে ঘা হতে পারে। এর ফলে ব্যথার চোটে দাঁত ব্রাশ করা যায় না। খাবার চিবোতেও কষ্ট হয়। মশলা দেয়া খাবার খেলেই জ্বলুনি বাড়ে ও খিদে মরে যায়। আর মুখের অন্য অংশেও ঘা দেখা যায়। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক সহজেই এর থেকে মুক্তির ঘরোয়া উপায়-

১. শরীরে ডিঙ্ক, ভিটামিন বি ও আয়রন সমৃদ্ধ খাবারের অভাব ঘটলে মুখে ঘা হয়। ঘাটতি কমাতে পালং শাক, ব্রক্কোলি, বিন, ডাল জাতীয় খাবার ডায়েটে রাখলে অনেকটাই রেহাই পাবেন এই কষ্ট থেকে।

২. আধা কাপ পানিতে ১ চা চামচ অ্যাপেল সিডার ভিনিগার মিশিয়ে টানা দুবেলা লাগালে কমে যাবে মুখের ঘা।
 
৩. টুথপেস্টের মধ্যেও জীবাণুনাশক অনেক উপাদান রয়েছে। এছাড়া, এর মধ্যে রয়েছে কুলিং মিন্ট। যা ব্যথায় আরাম দেয়। টুথপেস্ট নিয়মিত লাগালে সমস্যা কমতে বাধ্য।

৪. হালকা কুসুম গরম পানিতে সামান্য লবণ মিশিয়ে মুখ কুলকুচি করলেও লবণের প্রভাবে জীবাণু মরে ঘা কমবে। তবে এই চুলকুচি দিনে দুবার টানা কয়েকদিন করতে হবে।

৫. ঘায়ের ওপর নিয়মিত রসুনের রস লাগালেও একই উপকার মিলবে।

৬. মধুর মধ্যে থাকা জীবাণুনাশক উপাদান ক্ষত সারায় দ্রুত। ব্যথা কমায় ঝটপট। তাছাড়া ক্ষতের চারপাশের চামড়া শুকিয়ে যেতে দেয় না।
 
৭. শরীরের ক্ষতের মতোই মুখের ক্ষতও সারিয়ে দিতে পারে নারকেল তেল। ভার্জিন কোকোনাট অয়েল হলে আরো দ্রুত কাজ দেয়। তুলোয় করে দিনে দুবার এই তেল লাগালে কয়েক দিনের মধ্যেই ঘা সেরে যাবে।

মেহেরপুর বার্তা
মেহেরপুর বার্তা