বুধবার   ১৯ জুন ২০১৯   আষাঢ় ৬ ১৪২৬   ১৫ শাওয়াল ১৪৪০

২৪

টেনিসকে বিদায় বললেন মারে

ক্রীড়া ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১ জানুয়ারি ২০১৯  

একের পর এক চোটে জর্জরিত অ্যান্ডি মারে। চোটের হাত থেকে বৃটিশ তারকার রেহাই মিলছে না কোনোভাবেই। বাধ্য হয়ে তাই টেনিস থেকে অবসরের কঠিন সিদ্ধান্তটা নিয়ে ফেললেন তিনি। শুক্রবার সংবাদসম্মেলনে অশ্রুসিক্ত নয়নে মারে জানিয়েছেন, অস্ট্রেলিয়ান ওপেনই হাতে পারে তার ক্যারিয়ারের শেষ গ্র্যান্ড স্লাম।

সাবেক শীর্ষ তারকা মারে গত জানুয়ারিতে হিপ ইনজুরিতে পড়েন। অস্ত্রোপচারের পর জুনে ফেরেন কোর্টে। এরপর সবধরণের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে খেলেছেন ১৪টি ম্যাচ। তবে চেনা মারেকে আর দেখা যায়নি। প্রতিটি হারের পরই মারে বলতেন, ‘হিপে এখনও ব্যথা অনুভূত হয় আমার’। অস্ত্রোপচারের ২০ মাস পেরিয়ে গেলেও সেই ব্যথাটা রয়ে গেছে তার। 

সংবাদসম্মেলনে আসার পর সাংবাদিকদের প্রথম প্রশ্নই ছিল, ‘হিপ ইনজুরির কী অবস্থা এখন?’ প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে কেঁদে ফেলেন মারে। কাঁদো কাঁদো স্বরে বলেন, ‘ভালো নয়। আমি দীর্ঘ দিন যাবৎ ব্যথায় ভুগছি। গত ২০ মাস ধরেই আমার হিপে প্রচণ্ড ব্যথা অনুভূত হয়। এ থেকে মুক্তি পেতে আমি কী করিনি? কিন্তু বিশেষ লাভ হয়নি। গত ছয় মাসের তুলনায় যদিও এখন আমি কিছুটা ভালো অবস্থানে। তবে এখনও অনেক ব্যথা। আমি হয়ত একটা লেভেল পর্যন্ত পারফরম্যান্স করতে পারব। কিন্তু আগের মতো আর খেলতে পারব না।’

এরপরই অবসরের কথা জানান ৩১ বছর বয়সী মারে। বলেন, ‘আমি জানি না, এই ব্যথা নিয়ে আরও চার-পাঁচ মাস খেলে যাওয়া সম্ভব হবে কি না। আমি উইম্বলডন খেলে বিদায় নিতে চেয়েছিলাম। কিন্তু আমি সে নিশ্চয়তাও দিতে পারছি না এখন।’

আগামী সোমবার থেকে শুরু হতে যাওয়া অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের প্রথম রাউন্ডে স্পেনের রবার্তো বাতিস্তা আগুতের মুখোমুখি হবেন মারে। এই আসরে র‌্যাঙ্কিংয়ের ২৩০তম তারকা হিসেবে অংশ নিচ্ছেন তিনি।

ক্যারিয়ারে দুটি উইম্বলডন আর একটি ইউএস ওপেন আর দুটি অলিম্পিক সোনা জিতেছেন মারে। রজার ফেদেরার, রাফায়েল নাদাল, নোভাক জোকোভিচদের যুগে জন্ম নেয়াটা যেন ভুল ছিল তার। আটটি গ্র্যান্ড স্লাম ফাইনালে হেরেছেন মারে। এর মধ্যে শুধু অস্ট্রেলিয়ান ওপেনেই হেরেছেন পাঁচটি ফাইনাল। এরপরও বৃটেনের ইতিহাসে সেরা তারকা মারে। বছর দুয়েক আগে সম্মানজনক ‘নাইট’ উপাধিতে ভূষিত হন তিনি।

মেহেরপুর বার্তা
মেহেরপুর বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর